আমতলীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় তিন সন্তানের জনক গ্রেফতার - Alokitobarta
আজ : সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ

আমতলীতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় তিন সন্তানের জনক গ্রেফতার


মল্লিক মো.জামাল,বরগুনা প্রতিনিধিঃবরগুনা আমতলীতে ১৪ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে ৩ সন্তানের জনক কালাম মুন্সী(৪৫)বিরুদ্ধে।শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার উত্তর রাওঘা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যার পরে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে কালাম মুন্সীকে আসামী করে আমতলী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ৯(৪) (খ) ধারায় মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত ওয়াসিমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। জানাগেছে, শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার উত্তর রাওঘা গ্রামে ভিকটিমের বসত ঘরে রাত সারে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ভিকটিম শিশুটির মা বাড়ীতে ছিলেন না। তার বাবা ও ছোট এক ভাই ছিল। রাতে বাবা মাছ ধরতে বাড়ির বাহিরে গেলে মেয়েটি তার ছোট ভাইকে নিয়ে বাড়ীতে অবস্থান করে। এ সুযোগে তিন সন্তানের জনক কালাম মুন্সী তার বাড়ীর পাশ্ববর্তী ঘরের শিশুটির সাথে লুডু খেলতে যায়। লুডু খেলার মধ্যে ছোট ভাইটি ঘুমিয়ে পড়ে। এ সময় ভিকটিম শিশুটির পেটে ব্যথা অনুভূত হয়। ব্যথার কথা কালামকে জানালে শিশুটিকে তৈল পড়ে জামা সরিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মালিশ করাতে থাকে। মালিশ করার এক পর্যায়ে কালাম শিশুটিকে ঝাঁপটে ধরে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিশুটি ডাক চিৎকার শুরু করলে এলাকাবাসী জড়ো হয়। তখন কালাম দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। শিশুটি সবাইকে ঘটনা খুলে বলে।

শনিবার সন্ধ্যার পরে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে কালাম মুন্সীকে আসামী করে আমতলী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ৯(৪) (খ) ধারায় মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শনিবার রাতে অভিযুক্ত গ্রেফতার করে। পুলিশ আসামী কালাম মুন্সীকে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করলে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ সাকিব হোসেন তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আমতলী থানার এসআই নাসরিন সুলতানা জানান, আসামীকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। ভিকটিমকে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেয়ার জন্য বিজ্ঞ বিচারকের কাছে আনা হয়েছে।আমতলী থানার ওসি আবুল বাশার বলেন ভিকটিমের জবানবন্দি অনুযায়ী ধর্ষণের চেষ্টা মামলা হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Top
%d bloggers like this: