উদ্যোক্তা তৈরির বিকল্প নেই বেকারত্ব লাঘবে,দেশে বেকারত্বের হার নিম্নগামী করতে - Alokitobarta
আজ : শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
বৃষ্টি আইনে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া দেশের ১০ অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঝড়ের আভাস বন্যাদুর্গতদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহবান বিশ্বে শিশুমৃত্যুর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যঝুঁকি হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে বায়ুদূষণ চলতি অর্থবছরে বিদ্যুৎ খাতে ৩১ হাজার ৮৩৩ কোটি ভর্তুকি দেওয়া হয়েছে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়েছে ৩১ কোটি ৮২ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার মতিউর এক জাদুর বংশীবাদক বারবার বশ মানে দুদক মতিউর রহমানের দুই স্ত্রী, পাঁচ সন্তান ও আত্মীয়স্বজনের নামে গড়েছেন কয়েক হাজার কোটি টাকার স্থাবর-অস্থা... কুরবানির ঈদের পর ক্রেতার উপস্থিতি কম থাকলেও কৌশলে অস্থির করা হচ্ছে বাজার দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মীর গর্ভে ইফাত,ছাগলে ধরা ‘কালো বিড়াল’

উদ্যোক্তা তৈরির বিকল্প নেই বেকারত্ব লাঘবে,দেশে বেকারত্বের হার নিম্নগামী করতে


আলোকিত বার্তা:বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেছেন,দেশে বেকারত্বের হার নিম্নগামী করতে উদ্যোক্তা তৈরির বিকল্প নেই। শিক্ষার্থীদের এমন শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে যেন চাকরির পাশাপাশি উদ্যোক্তা তৈরির পথ সুগম হয়।রবিবার ইউজিসিতে আয়োজিত ‘ডেভেলপমেন্ট অব ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক ফর বাংলাদেশ’ এর সক্ষমতা বৃদ্ধি শীর্ষক দু’দিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। দেশে একটি সমন্বিত ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক তৈরির লক্ষ্যে ইউজিসি’র সহায়তায় আইএলও এ কর্মশালার আয়োজন করে।

তিনি বলেন, শুধু সরকারি চাকরির জন্য বসে থাকলে চলবে না উদ্যোক্তা হতে হবে। আমাদের সম্ভাবনাময় যুবশক্তিকে প্রয়োজনীয় জ্ঞান ও প্রযুক্তির মাধ্যমে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে।ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইউসুফ আলী মোল্লার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বগত বক্তব্য রাখেন স্কিল ২১ প্রকল্পের চিফ টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার মিস লিগায়া ডুমায়াং।বিআইডিএস’র সম্প্রতি প্রকাশিত সার্ভে রিপোর্টের কথা উল্লেখ করে ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের ৩২ শতাংশ স্নাতক বেকার। এটা খুবই উদ্বেগজনক। তিনি বলেন, এ প্রতিবেদন আমাদের দেখিয়ে দিয়েছে যে আমরা সঠিক ও প্রয়োজনীয় জ্ঞান ও দক্ষতা দিতে পারছি না। শিল্পের চাহিদা অনুযায়ী স্নাতক তৈরি হচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয়-শিল্পের মধ্যে সহযোগিতার অভাব রয়েছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়মিতভাবে পাঠক্রম আপডেট করার পরামর্শ প্রদান করেনন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক শিক্ষার্থীদের জ্ঞান ও দক্ষতা বিকাশে সহায়তা করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

অধ্যাপক মোল্লা বলেন, ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক একটি ফর্মুলা যার লক্ষ্য উচ্চশিক্ষার গুণগতমান নিশ্চিত করা। প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে টিকে থাকার জন্য ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক দরকার বলে তিনি মনে করেন। সভায় ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. দিল আফরোজা বেগম, অধ্যাপক ড. মো. আখতার হোসেন; অধ্যাপক সঞ্জয় কুমার অধিকারী, শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।উল্লেখ্য, ইউজিসি হেকেপ প্রকল্পের আওতায় একটি ন্যাশনাল কোয়ালিফিকেশন ফ্রেমওয়ার্ক এর ওপর একটি নীতিমালা সম্পন্ন করেছিল।

Top
%d bloggers like this: