নিয়োগ চলতি বছরে ৪৭৯২ চিকিৎসক - Alokitobarta
আজ : সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ

নিয়োগ চলতি বছরে ৪৭৯২ চিকিৎসক


আলোকিত বার্তা:স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন,চলতি বছরে দেশের হাসপাতালগুলোতে চার হাজার ৭৯২ জন চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে।বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মন্ত্রী। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ১০০ দিনের কর্মসূচির মেয়াদ পূর্তি উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।মন্ত্রণালয় ঘোষিত ১০০ দিনের কর্মসূচি পুরোটাই বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারের ভিত্তিতে আমরা ১০০ দিনের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছিলাম। এই কর্মসূচি আমরা পুরোটাই বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি। ইনশাআল্লাহ আগামী ১ বছরের কর্মসূচিও খুব শিগগিরই প্রকাশ করা হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, প্রতিটি হাসপাতালকে মনিটরিংয়ের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। চিকিৎসকদের উপস্থিতির হার ৪০ শতাংশ থেকে ৭৫ শতাংশে উন্নীত করা সম্ভব হয়েছে। আমরা আশা করছি, শিগগিরই চিকিৎসকদের উপস্থিতির হার একশ ভাগে চলে আসবে। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের কার্যক্রম আগামী ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে শুরু হবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশেষায়িত এই হাসপাতালের জন্য যন্ত্রপাতি এরই মধ্যে এসে গেছে। সেগুলো বসানোর কাজ চলছে। আমরা আশা করছি, আগামী ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে এই হাসপাতালের কার্যক্রম পুরোপুরিভাবে শুরু করা সম্ভব হবে। এখনও রোগীর সেবা দেয়া হচ্ছে তবে কম পরিসরে।তিনি বলেন,ইতোমধ্যে সাড়ে তিনশ চিকিৎসককে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। দেশের হাসপাতালগুলোতে চার হাজার ৭৯২ জন চিকিৎসক নিয়োগের জন্য সুপারিশের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। চলতি বছরের মধ্যে এসব চিকিৎসক নিয়োগ শেষে আগামী বছর আরো প্রায় পাঁচ হাজার নিয়োগ দেয়া হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, প্রতিটি হাসপাতালের সেবার মূল্যতালিকা টাঙানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি হাসপাতালের ওয়েবসাইট খোলা হয়েছে। সেখানে যে কেউ অভিযোগ বা পরামর্শ দিতে পারবেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় খুব শিগগিরই প্রতিটি বিভাগে ১০০ শয্যার একটি করে ক্যান্সার-কিডনি হাসপাতাল স্থাপন করা হবে।স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. মুরাদ হাসান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Top
%d bloggers like this: