বেনাপোলে রোহিঙ্গা সন্দেহে ৫ জনকে নির্যাতন চালিয়ে আহত করেছে এলাকাবাসী - Alokitobarta
আজ : শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বেনাপোলে রোহিঙ্গা সন্দেহে ৫ জনকে নির্যাতন চালিয়ে আহত করেছে এলাকাবাসী


মোঃসাগর হোসেন,বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধি: যশোরেরশার্শায় ও বেনাপোল রোহিঙ্গা ছেলে ধরা সন্দেহে আট জনকেশারিরীক নির্যাতন চালিয়ে আহত করেছে এলাকাবাসী।শুক্রবার(১০মে) দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সময়ে আহত পাঁচমানসিক রোগীকে জনতার হাত থেকে উদ্ধার করে বেনাপোলপোর্টথানা পুলিশ।উদ্ধার হওয়া মানসিক রোগীরা হলেন, যশোরের রায়পুর ইউনিয়নেরবাঘারপাড়া উপজেলার শালবরাত গ্রামের অরবিন্দের স্ত্রী বুলু(৭০),সিলেটের দক্ষিনসার গ্রামের মেশের আলীর ছেলে গিয়াসউদ্দীন(৩৩),সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার শৃকলম গ্রামের রুহুল আমিনের স্ত্রীসকিনা বেগম(৪৮), গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার রানদিয়াগ্রামের সঞ্জিতের স্ত্রী নমিতা রানী(৪২) ও অন্য এক নারী হলেনমনোয়ারা(৩৬)।

স্থানীয় বাসীন্দা আরিফ জানায়, প্রথমে বেনাপোল মাছ বাজারেএক বৃদ্ধ নারীকে রোহিঙ্গা ছেলে ধরা সন্দেহে স্থানীয়রা মারধোরকরে পুলিশে দেয়। এর পর পরই এলাকায় রোহিঙ্গা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।স্থানীয়রা এলাকায় অবস্থানরত মানসিক ভারসাম্য সব পাগল শ্রেনীরনারী,পুরুষদের রোহিঙ্গা ছেলে ধরা সন্দেহে মারধোর করে পুলিশেদিতে শুরু করে ।বেনাপোল পোর্টথানা এসআই এইচ এম লতিফ আমাদেরকেজানান, শিশুদের অবিভাবকদের সাথে কথা বলে শেষ পর্যন্ত মনে হয়নিআটকরা ছেলে ধরা। এছাড়া তারা কেউ রোহিঙ্গা না। শেষ পর্যন্তস্থানীয় চেয়ারম্যানদের জেম্মায় উদ্ধার হওয়া পাচ নারী,পুরুষকেতাদের নিজ নিজ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

Top
%d bloggers like this: