মে দিবস পালিত বরিশালে নানা আয়োজনে - Alokitobarta
আজ : শনিবার, ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদঃ
বৃষ্টি আইনে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া দেশের ১০ অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঝড়ের আভাস বন্যাদুর্গতদের সাহায্যে এগিয়ে আসার আহবান বিশ্বে শিশুমৃত্যুর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যঝুঁকি হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে বায়ুদূষণ চলতি অর্থবছরে বিদ্যুৎ খাতে ৩১ হাজার ৮৩৩ কোটি ভর্তুকি দেওয়া হয়েছে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়েছে ৩১ কোটি ৮২ লাখ ৮০ হাজার মার্কিন ডলার মতিউর এক জাদুর বংশীবাদক বারবার বশ মানে দুদক মতিউর রহমানের দুই স্ত্রী, পাঁচ সন্তান ও আত্মীয়স্বজনের নামে গড়েছেন কয়েক হাজার কোটি টাকার স্থাবর-অস্থা... কুরবানির ঈদের পর ক্রেতার উপস্থিতি কম থাকলেও কৌশলে অস্থির করা হচ্ছে বাজার দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মীর গর্ভে ইফাত,ছাগলে ধরা ‘কালো বিড়াল’

মে দিবস পালিত বরিশালে নানা আয়োজনে


আলোকিত বার্তা:র‌্যালি ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বরিশালে পালিত হয়েছে মে দিবস।বুধবার (০১ মে) সকাল থেকে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন ও রাজনৈতিক সংগঠনের শ্রমিক শাখা বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করে, যা পৃথকভাবে নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পাশাপাশি অনুষ্ঠিত হয়েছে আলাদা সমাবেশও।এছাড়া দিবসটি উপলক্ষে আঞ্চলিক শ্রম দপ্তর ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল ১০টায় নগরের সার্কিট হাউজ থেকে র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নগরের অশ্বিনী কুমার হল চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে সকাল সাড়ে ১০টায় অশ্বিনী কুমার হলে আলোচনা সভা শুরু হয়।

বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ।প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা আর প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে মালিক-শ্রমিক ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই। তাই সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয়ই ব্যক্ত করেন তিনি।কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর বরিশাল কার্যালয়ের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল হিমন কুমার সাহা জানান, এটি রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি। শ্রমিক ও মালিক ছাড়াও সাধারণ মেহনতি মানুষদের সচেতন করাই আমাদের লক্ষ্য।

এ দিন সকাল ১০ টা থেকে সম্মিলিত মে দিবস উদযাপন পরিষদ, জেলা ইমারত শ্রমিক ইউনিয়ন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট, লঞ্চ শ্রমিক ফেডারেশন, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, কমিউনিস্ট পার্টি, শ্রমিক লীগ, শ্রমিক দলসহ বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন নগরে পৃথকভাবে র‌্যালি বের করে। র‌্যালির পূর্বে শ্রমিকদের নূন্যতম মজুরি, শ্রমিকদের নিরাপত্তা, নির্ধারিত কর্মঘণ্টা ও কাজের নিশ্চয়তাসহ বিভিন দাবি নিয়ে শ্রমিক সংগঠনগুলো আলাদা সমাবেশ ও আলোচনা সভা করে।লঞ্চ শ্রকিমরা তাদের আলোচনা সভায় বলেন, তারা যে মজুরি পান, এদিয়ে জীবন চালানো দায়। এক্ষেত্রে সরকার নজর দেবেন বলে মনে করেন তারা। অন্যদিকে, তাদের ১১ দফা দাবির ক্ষেত্রে বেঁধে দেওয়া ৪৫ দিনের মধ্যে সেগুলো মেনে না নিলে, তারা ফের আন্দোলনে যাবেন বলেও জানান।এছাড়াও আলোচনা সভা ও র‌্যালির মধ্য দিয়ে বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়নও দিবসটি পালন করে।

Top
%d bloggers like this: